ঢাকাFriday , 23 February 2024

অপরাধীদের চোখে আতংকের নাম এসআই আসওয়াদুর রহমান

এস এম মনিরুল ইসলাম
ডিসেম্বর ২, ২০২৩ ৫:২১ অপরাহ্ণ । ৭৫ জন
link Copied

ঢাকা জেলার অদূরে সাভার মডেল থানায় পুলিশ সাম্প্রতিক সময়ে অপরাধ দমনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করে চলেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় ঢাকা জেলা পুলিশের সাহসী পুলিশ অফিসাররা এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে চলেছেন। তবে এসব সাহসী পুলিশ অফিসারের মধ্যে অল্প দিনে জনগনের মাঝে বেশ পরিচিতি পেয়েছেন সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ও ভাকুর্তা পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ মো. আসওয়াদুর রহমান।

তিনি আইনের সেবা করতে গিয়ে কখনোই অপরাধীদের সাথে আপোষ করেননি। ছাড় দেননি মাদক ব্যবসায়ীদের। সে কারনে সাফল্যের পাল্লা দিন দিন ভারি হয়ে উঠছে। সাহসীকতায় তিনি অপরাধীদের কাছে আতংক হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন বলে মনে করেন সাভারবাসি।

ইতোপূর্বে তিনি সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে মাদক বিরোধী অভিযানে সাহসী ভুমিকা পালন করেছেন। পুলিশের ভাবমূর্তি অক্ষুন্ন রাখতে ও জনগণের সেবা সঠিকভাবে পালন করার কারনেই তিনি অনেক সাফল্য লাভ করেছেন।

পুলিশ নিয়ে অনেকের বিরুপ ধারনা থাকলে ও ঢাকা জেলার সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক আসওয়াদুর রহমান সেই ধারণা বদলে দিয়েছেন। এস আই আসওয়াদুর রহমান একজন ব্যতিক্রমী মিষ্টভাষি পুলিশ অফিসার। প্রতিনিয়ত তিনি সহকর্মী ও সাধারণ জনগনের আদর্শগত ভিন্নতা মেনে নিয়ে পরস্পরের সাথে কাজ করে যাচ্ছেন জনগন ও দেশের কল্যাণে। পুলিশ জনগণের বন্ধু তিনি এই বাক্যটির প্রকৃত নিদর্শন।

বর্তমান সময় সাভার ভাকুর্তা এলাকার সর্বত্রই পুলিশের নাম শুনলেই সন্ত্রাসী মাদক ব্যাবসায়ী ধর্ষণকারী ও ভূমিদস্যুদের মনে আতংক বিরাজ করে। এই সাহসী পুলিশ অফিসার (এস আই) আসওয়াদুর রহমান সাভার মডেল থানায় যোগদানের পর থেকে ব্যাপক খ্যাতি অর্জন করে চলেছেন।

খুব কম সময়ে নিজের কর্ম দক্ষতার প্রমান দিয়ে সাহসী ভূমিকায় একের পর এক আসামী গ্রেফতার, মাদক উদ্ধার সহ নানা ভাবে সফলতা লাভ করে চলেছেন। সাভারের ভাকুর্তা ইউনিয়নের বিভিন্ন মহল্লার সন্ত্রাসী, ভূমিদস্যু ও মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে তিনি একজন আতংক পুলিশ অফিসার হিসাবে নিজেকে জানান দিতে সক্ষম হয়েছেন। শুধু তাই নয় নিজের কর্মগুনে প্রশাসনের উর্দ্ধতনমহলেও প্রশংসা শোনাযায় এই পুলিশ অফিসারের।

শুধুমাত্র চোর, ডাকাত, মাদক ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন মামলায় অভিযুক্ত এবং শীর্ষ সন্ত্রাসী ছাড়াও হত্যা, খুন, গুম, ভূমিদস্যু, ধর্ষন, অপহরন, চাঁদাবাজসহ অন্যান্য মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত আসামীদেরকেও তিনি গ্রেফতার করে আদালতের কাঠগড়ায় দাড় করাতে সক্ষম হয়েছেন। অল্প সময়েই তিনি বেশ সৎ ও সাহসীকতার পরিচয় দিয়ে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছেন সাভারের সর্বস্তরের সাধারণ জনগণের কাছে। শ্রেষ্ঠ অফিসার হিসেবেও বেশ কয়েকটি পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন এ চৌকস পুলিশ অফিসার।

খোঁজ নিয়ে জানা যায় বেশ কয়েকটি অভিযানে মাদক ব্যবসায়ী সহ সেবনকারীদের গ্রেফতার করেছেন। এতে করে মাদক ব্যবসায়ীদের আতংকের নাম (এস আই) মো. আসওয়াদুর রহমান।

এলাকার কোথাও মাদক বিক্রি হচ্ছে বা কেউ সেবন করছে এমন তথ্য পাওয়া মাত্র সাভার মডেল থানার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহার অনুমতি নিয়ে তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নেন। যে কারনে সাহসী পুলিশ অফিসারের মধ্যে তিনি বেশ সুনাম অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন।

তবে অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহার নেতৃত্বে একদল সাহসী পুলিশ অফিসার রয়েছে যারা প্রতিনিয়ত মাদকসহ সকল অপরাধের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে রয়েছেন। সাফল্যের নেপথ্যে কি আছে জানা চাইলে তিনি বলেন, পুলিশ জনগণের বন্ধু। তাই রাষ্ট্র ও জনগকে শত্রুদের থেকে রক্ষা করতেই পুলিশে চাকরি নিয়েছি।

তিনি আরো বলেন, সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা এর নেতৃত্বে কঠোর নির্দেশ পালন করার জন্য সবসময় প্রস্তুত রয়েছি।

এনপি