ঢাকাSaturday , 22 June 2024
  • অন্যান্য

আশুলিয়ায় ট্রাকের নির্বাচনী ক্যাম্প ভাঙচুর, কুপিয়ে যখমসহ আহত ৫, নৌকার ৩ সমর্থক গ্রেপ্তার

এস এম মনিরুল ইসলাম
জানুয়ারি ১, ২০২৪ ৬:১০ অপরাহ্ণ । ১৮৪ জন
link Copied

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ ঢাকা-১৯ নির্বাচনী এলাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী ট্রাক মার্কার অফিস ভাঙচুর ও ৫ সমর্থককে কুপিয়ে গুরুতর আহতের ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

রোববার রাত ১২ টার দিকে আশুলিয়ার পূর্ব নরসিংহপুর এলাকায় হামলা হলে রাত ১ টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ ঘটনায় মনির হোসেন নামে এক ভুক্তভোগী আশুলিয়া থানায় এজাহার দায়ের করেছেন।

গ্রেফতারকৃত তিনজনকে সোমবার বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, আশুলিয়ার পূর্ব নরসিংহপুর এলাকার জাহিদ ভূঁইয়া (২৫), রাসেল কমান্ডার (৩২) ও জনি দেওয়ান (৩০)।

এদিকে পলাতক রয়েছেন ১৭ মামলার আসামি ইয়াবাসেবী ইউপি সদস্য জলিল উদ্দিন ওরফে রাজন ভূঁইয়া (৩৩) ও তার ছোট ভাই রাকিব ভূইয়া (২৮), সাইফুল ইসলাম (৩৫), পালছার মাসুদ (৩৪), রনি দেওয়ান (২৫), ইমন (৩৫), নিজাম (৩২), আমানসহ (৪০)সহ অজ্ঞাত আরও ২৫-৩০ জন। তারা আশুলিয়া থানার পূর্ব নরসিংপুরের বাসিন্দা। আসামিরা সবাই নৌকার প্রার্থী ডা. এনামুর রহমানের সমর্থক।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গিয়েছে ,ওই এলাকায় ট্রাক প্রতীকের নির্বাচনী ক্যাম্প স্থাপন করেন মুহাম্মদ সাইফুল ইসলামের সমর্থক আমিনুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি। পরে রাজন ভূঁইয়া ও তার সহযোগীরা ৩১ ডিসেম্বর রাত সাড়ে ১১ টার দিকে হকিস্টিক, রাম দা, চাইনিজ কুড়াল ও দেশীয় অস্ত্রসহ ক্যাম্প ভাঙচুর করেন। খবর পেয়ে স্থানীয় শ্রমিক লীগ নেতা সানাউল্লাহ ভূঁইয়া সানিসহ কয়েকজন সেখানে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করেন। এসময় ইউপি সদস্য রাজন ও তার সহযোগীরা তাদের ওপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করেন। পরে ট্রাকের আরো দুই ক্যাম্প ভাঙচুর করে তারা। সেখানেও ৩ জনকে মারধর করে আহত করেন রাজন ভূঁইয়ার লোকজন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আশুলিয়া থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) শেখ আবুল হাসান বলেন, খবর পেয়ে রাতেই অভিযান চালিয়ে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জড়িত অন্যান্যদের গ্রেপ্তার অভিযান চলমান রয়েছে। এই ঘটনায় আশুলিয়া থানায় মামলা হয়েছে। দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান পুলিশ।

আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ এএফএম সায়েদ বলেন, এই ঘটনা থানায় মামলা হয়েছে। আসামীরা যত বড় শক্তিশালী হোক তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে। ঘটনার পরপর অভিযান চালিয়া তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।