ঢাকাThursday , 23 May 2024
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভেঙেছে সেতুর পাটাতন, ঝুঁকি নিয়ে চলাচল

বাংলা ডেস্ক
নভেম্বর ১৪, ২০২৩ ৪:২২ অপরাহ্ণ । ১০৫ জন
link Copied

গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার বুড়াইল খালের ওপর ভেঙেছে সেতুর পাটাতন। এছাড়া উত্তর কাঠুর সীমানার সেতুটিও একই অবস্থা। কয়েক বছর ধরে ভাঙা দুই সেতু দিয়ে মানুষ ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করলেও নেওয়া হয়নি মেরামতের উদ্যোগ। ফলে মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে সেতু দুটি।

জানা যায়, ফুলছড়ি উপজেলা সদর থেকে বোয়ালী হয়ে গাইবান্ধা সদর উপজেলা পথে সীমান্ত মোড় নামক স্থানে বুড়াইল খালের উপর সেতুর পাটাতন ভেঙেছে প্রায় দুই বছর হলো। এছাড়া উদাখালী ইউনিয়নের কর্তিকুড়া হতে মাছেরভিটা রাস্তায় উত্তর কাঠুর সীমানায় খালের উপর সেতুর পাটাতন ভেঙেছে গেছে প্রায় ৪ বছর ধরে। সেতুর পাটাতনের ভাঙা অংশে কাঠের টুকরো বসিয়ে কোনভাবে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে বিভিন্ন যানবাহন। এতে প্রায়ই দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন পথচারীরা। পাটাতন ভাঙা থাকায় ভারী যানবাহন চলাচল করতে না পারায় স্থানীয় হাট-বাজারে ব্যবসায়ীদের মালামাল পরিবহন করতে পোহাতে হচ্ছে চরম দুর্ভোগ। প্রতিদিন এ সড়ক দুটি দিয়ে জনসাধারণ ছাড়াও শতশত শিক্ষার্থী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করছে।

স্থানীয়রা জানায়, এক রাজনৈতিক নেতার সহযোগিতায় ভাঙা অংশে কাঠের পাটাতন দিয়ে সাময়িকভাবে হালকা যান চলাচলের উপযোগী করেছেন। এভাবে ৪ বছর অতিবাহিত হলেও সেতুটি পুণ:নির্মান করা হয়নি।

স্থানীয় বাসিন্দা হারুন অর রশিদ বলেন, সেতুটির ওপর দিয়ে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীসহ জারো মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করে । ভাঙা সেতুটির মেরামত করতে স্থানীয়দের পক্ষ থেকে বারবার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরে বলা হলেও কোনো উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে না।

প্রধান শিক্ষক শামসুজ্জোহা বাবলু বলেন, ভাঙা সেতু দিয়ে এলাকাবাসী ঝুঁকিপূর্ণভাবে যাতায়াত করছে। যে কোন সময় এটি ধ্বসে পড়ে বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

ফুলছড়ি উপজেলা প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম বলেন, কর্তিকুড়া হতে মাছেরভিটা রাস্তায় উত্তর কাঠুর সীমানায় খালের উপর সেতুটি পূণঃনির্মানের জন্য দরপত্র আহবান প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এছাড়া সীমান্ত মোড় নামক স্থানে বুড়াইল খালের উপর সেতুটি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে পূণঃনির্মাণে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ফুলছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আনিসুর রহমান বলেন, আমি ক্ষতিগ্রস্থ সেতু দুটি দেখেছি। আপাতত অস্থায়ীভাবে মেরামতের ব্যবস্থা করা হবে।

এসআর