ঢাকাSaturday , 2 March 2024
  • অন্যান্য

শুধু মিয়ানমার নয়, আমরা কারও সঙ্গে যুদ্ধে জড়াতে চাই না: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৪ ৫:২৪ অপরাহ্ণ । ২৪ জন

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

link Copied

মিয়ানমারের সঙ্গে বাংলাদেশের কোনো বিরোধ নেই উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমাদের সঙ্গে রোহিঙ্গা ইস্যুতে যে সমস্যা, সেটা আন্তর্জাতিকভাবে সমাধানের প্রয়াস চলছে। এটা তাদের সঙ্গে আমাদের যুদ্ধের কোনো কারণ হবে না।

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা মিয়ানমারের সঙ্গে নয় শুধু—আমরা কারও সঙ্গে যুদ্ধে জড়াতে চাই না।’

মঙ্গলবার সকালে ২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউর আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

কাদের বলেন, আমরা তো একে অন্যের সঙ্গে যুদ্ধে লিপ্ত না। (মিয়ানমার) তাদের ইন্টারনাল কনফ্লিক্টটা তাদের সীমান্ত পর্যন্ত গড়াচ্ছে এবং সীমান্ত থেকে ছিটকে পড়ছে মর্টার শেল, গোলা; আমাদের দুজন নাগরিক—একজন নারী ও একজন পুরুষ মারা গেছে। মিয়ানমারের ১০৪ জনের মতো সীমান্তরক্ষী বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে।

তিনি বলেন, আমরা মনে করছি, এটা মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ বিষয়। তাদের ৫৪টার মতো এথনিক কমিউনিটি আছে। এরা বিভিন্ন জায়গা ইতোমধ্যে দখল করে ফেলেছে। সেনাবাহিনীর সঙ্গে তাদের ইন্টারনাল কনফ্লিক্ট; আমাদের সঙ্গে তাদের কোনো বিরোধ নেই। আমাদের সঙ্গে রোহিঙ্গা ইস্যুতে যে সমস্যা, সেটা আন্তর্জাতিকভাবে সমাধানের প্রয়াস চলছে। এটা তাদের সঙ্গে আমাদের যুদ্ধের কোনো কারণ হবে না।

‘আমরা মিয়ানমারের সঙ্গে নয় শুধু—আমরা কারও সঙ্গে যুদ্ধে জড়াতে চাই না। আমরা আলাপ আলোচনার মাধ্যমে আমাদের উদ্বেগ আমরা জানাব। তাদের বক্তব্যও শুনব। যে কোনো সমস্যা আমরা আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের ব্যাপারে আমাদের সিদ্ধান্ত আছে,’ বলেন ওবায়দুল কাদের।

একজন গণমাধ্যমকর্মী দৃষ্টি আকর্ষণ করেন, এ ধরনের ঘটনা যখন ঘটে আমরা দেখি রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ হয়। যতবারই এ রকম হয়েছে, রোহিঙ্গারা স্রোতের মতো বাংলাদেশে ঢুকেছে। এবারও সে রকম আশঙ্কা আছে। যেহেতু ঘটনাটা একেবারে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী—এ ব্যাপারে কাদের বলেন, ‘আমরা নেতিবাচক কথা বলতে চাই না, আমরা ইতিবাচক। আমরা আলাপ-আলোচনাই করব। জাতিসংঘ আছে, তাদের দৃষ্টিও আমরা আকর্ষণ করব।’

এর আগে তিনি সংরক্ষিত আসনের মনোনয়ন ফরম বিক্রির বুথ পরিদর্শন করেন।

এসআর