ঢাকাThursday , 29 February 2024

টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নের কর্মকৌশল নির্ধারণে বিপিএসডব্লিউসি‘র সভা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক
ডিসেম্বর ৬, ২০২৩ ৬:০৫ অপরাহ্ণ । ৬৫ জন
link Copied

টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নে সহায়তা করার লক্ষ্যে বেসরকারি খাত, সরকার এবং জাতিসংঘের উদ্যোগে গঠিত বাংলাদেশ প্রাইভেট সেক্টর ওয়ার্কিং কমিটি (বিপিএসডব্লিউসি) -এর পাঁচ বিষয়ভিত্তিক দলের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (০৬ ডিসেম্বর) রাজধানীর গুলশানে দি ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই), বাংলাদেশ এমপ্লয়ার্স ফেডারেশন (বিইএফ) এবং জাতিসংঘ আবাসিক সমন্বয়কারীর কার্যালয়- বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে বেসরকারি খাতকে সাথে নিয়ে সরকার এবং উন্নয়ন সংস্থাগুলোর সমন্বিত কর্মকৌশল নির্ধারণের বিষয়ে আলোচনা হয়।

বাংলাদেশ প্রাইভেট সেক্টর ওয়ার্কিং কমিটির (বিপিএসডব্লিউসি) পাঁচ বিষয় ভিত্তিক দলগুলো হলো: ইনক্লুসিভ অ্যান্ড সাসটেইনেবল ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট; ইকুইটেবল হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড ওয়েলবিং; সাসটেইনেবল, হেলদি অ্যান্ড রেজিলিয়েন্ট এনভায়রনমেন্ট; ট্রান্সফরমেটিভ, পার্টিসিপেটরি ইনক্লুসিভ গভার্ন্যান্স; এবং জেন্ডার ইকুয়ালিটি অ্যান্ড এন্ডিং জেন্ডার-বেজড ভায়লেন্স প্রভৃতি।

দলগুলোতে বেসরকারি খাতের প্রতিনিধি হিসেবে এফবিসিসিআই থেকে মনোনীত ৬ জন, বিইএফ থেকে মনোনীত ৩ জনসহ জাতিসংঘের বিভিন্ন দপ্তর-সংস্থার প্রতিনিধি এবং গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় এবং বিভাগের প্রতিনিধিগণ নেতৃত্ব দিচ্ছেন।
টেকসই উন্নয়নের ১৭ টি লক্ষ্যামাত্রা এবং ১৬৯ টি সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য অর্জনে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কর্মকৌশল নির্ধারণ এবং তা বাস্তবায়নের উদ্যোগ নিবে এই বিষয় ভিত্তিক দলগুলো।

পাঁচ বিষয়ভিত্তিক দলের প্রথম সভায় অংশ নিয়ে এফবিসিসিআই –এর সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ আমিন হেলালী জানান, বর্তমান অর্থনৈতিক প্রেক্ষাপটে এই পাঁচ থিমেটিক গ্রুপ আরও বেশি প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠেছে।

তিনি বলেন, বিগত কয়েক দশকে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি প্রসংশনীয়। যেটি অর্জনে অন্যতম নিয়ামক হিসেবে কাজ করেছে বেসরকারি খাত। আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সরকার, বেসরকারি খাত এবং অন্যান্য সহযোগিদের সমন্বিত প্রদক্ষেপ জরুরী।

বাংলাদেশের এলডিসি গ্রাজুয়েশন পরবর্তী চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে এই বিষয় ভিত্তিক দলগুলো অত্যন্ত সময়োপযোগী ভূমিকা পালন করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। এসডিজি অর্জনে সরকার ও আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সহযোগীদের সাঙ্গে বেসরকারি খাত একযোগে কাজ করবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

একই সাথে, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) এবং অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জনে সরকার এবং উন্নয়ন সহযোগিদের ব্যবসা-বান্ধব নীতি প্রণয়নের আহ্বান জানান মোঃ আমিন হেলালী।

বিপিএসডব্লিউসি‘র পাঁচ বিষয়ভিত্তিক দলের প্রথম সভায় অংশগ্রহণকারীদের স্বাগত জানিয়ে, ইউএনআরসি’র ডেভেলপমেন্ট কো-অর্ডিনেশন অফিসার বেন মর্গান বলেন, বাংলাদেশের এলডিসি গ্র্যাজুয়েশন পরবর্তী চ্যালেঞ্জ এবং এসডিজি বাস্তাবায়নকে তরান্বিত করতে পাঁচ বিষয়ভিত্তিক দলের এই সভা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এর মধ্য দিয়ে আগামীর কর্মকৌশল নির্ধারণ এবং তা বাস্তবায়ন সহজ হবে।

উল্লেখ্য, আগামী বৃহস্পতিবার (০৭ ডিসেম্বর) রাজধানীর গুলশানে বাংলাদেশ প্রাইভেট সেক্টর ওয়ার্কিং কমিটির (বিপিএসডব্লিউসি) পরিচালনা পর্ষদের দ্বিতীয় সভা অনুষ্ঠিত হবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার (আইএলও) কান্ট্রি ডিরেক্টর টুওমো পৌটিয়াইনেন; বাংলাদেশে জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) আবাসিক প্রতিনিধি স্টেফান লিলার; জাতিসংঘ, ইউনিসেফ, ইউএনডিপি, ইউএনএফপিএ, এফএও, আইএলও -এর এসডিজি ফোকাল পয়েন্ট এবং প্রতিনিধিবৃন্দ, শিল্প মন্ত্রণালয়, কৃষি মন্ত্রণালয়, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, অর্থ মন্ত্রণালয়ের সাধারণ অর্থনৈতিক পরিষদসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দসহ এফবিসিসিআই এর সেইফটি কাউন্সিলের উপদেষ্টা এবং বিপিএসডাব্লিউসি’র সদস্য সচিব ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আবু নাঈম মোঃ শহীদুল্লাহ এবং বাণিজ্য ও ট্যারিফ নীতির উপদেষ্টা মনজুর আহমেদ; এবং বিইএফ এর মহাসচিব ফারুক আহমেদ প্রমুখ।