ঢাকাSaturday , 22 June 2024
  • অন্যান্য

সখিপুরে স্বাস্থ্য কেন্দ্রের দেয়াল ঘেঁষে ময়লার ভাগাড়

মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম
ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২৪ ৫:১১ অপরাহ্ণ । ১৫৯ জন
link Copied

আনুমানিক ১০গজ পূর্ব -দক্ষিণ কোণে সখিপুর উপজেলা কালিয়া ইউনিয়ন (নবগঠিত বড়চওনা ইউনিয়নের) স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ (FWC)কেন্দ্রের সম্মূখভাবে স্তুপাকারে আবর্জনা ফেলে গড়ে ওঠেছে ময়লার ভাগাড়।

টাঙ্গাইলের সখিপুর উপজেলার বড়চওনা ইউনিয়ন এলাকার মানুষের স্বাস্থ্যসেবা সুবিধে করার লক্ষ্যে ১৯৭৯সালে স্বাস্থ্য কেন্দ্র গড়ে ওঠে।

সোমবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, স্বাস্থ্য কেন্দ্রের পাশেই অবৈধভাবে ময়লা ফেলে স্তুপ তৈরি করেছে। সখিপুর স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণের বরাদ্দকৃত ভূমির উপর ময়লার স্তুপের পাশে কয়েকটি খুপরি করে স্থানীয় কয়েকজন চায়ের দোকান পরিচালনা করেন। সখিপুর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের ৬টি ইউনিয়নে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ (FWC) কার্যক্রম চালু আছে। অনেকেই সখিপুর-সাগরদিঘী প্রধান সড়কের পূর্ব পাড়ের কোল ঘেঁষে স্বাস্থ্য সেবার জমিতে বিভিন্ন অস্থায়ী দোকান দিয়ে ব্যবসা করেন।

স্বাস্থ্যসেবার জন্য দুটি দলিলে ৪৮৩৩ নং দাগে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের অনুকূলে সাফ কওলা মূলে ৭৫শতাংশ ভূমি রেজিষ্ট্রেশন রয়েছে। কিন্তু ঐ ভূমির চারিদিকে সীমানা বেষ্টনী না থাকায় সাধারণ মানুষ অনায়াসে স্বাস্থ্য সেবার সামনেই মলমূত্র ত্যাগ করার সুযোগ পাচ্ছে। এতে দুর্গন্ধ থেকে মশা-মাছি জীবাণু ছড়াচ্ছে। ফলে স্বাস্থ্যসেবার স্থলে স্বাস্থ্য ব্যাঘাত ঘটছে। এলাকার সেবা প্রত্যাশী মানুষের দুর্ভোগের সীমা নেই।

বড়চওনা এলাকার গৃহিনী নিয়মিত সেবা গ্রহণকারী হেলেনা আক্তার জানান,পাশেই ময়লার স্তুপ থাকায় এমন দূর্গন্ধ হয় টেকায় যায়না। বাড়ির কাছে সহজেই সেবা পেতে অনেকটা অনিচ্ছা সত্ত্বেও সেবা নিতে আসছি। যদি এখানে ময়লা ফেলা বন্ধ করে পরিস্কার-পরিছন্ন রাখা হয় আরও ভালো লাগবে।

কালিয়া ইউনিয়ন পরিবার পরিকল্পনা স্বাস্থ্যসেবার দায়িত্ব প্রাপ্ত ইনচার্জ চিন্তাহরণ সিকদার বলেন, সেবা বিঘ্নিত হচ্ছে, বিষয়টি কর্তৃপক্ষের কাছে বলেছি। আশা রাখি দ্রুতই পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

সখিপুর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা (FWC) কর্মকর্তা জাকিয়া জান্নাত বীথি প্রতিবেদকের সাথে কথা হলে বলেন, আমি দায়িত্ব বুঝে নেওয়ার পর থেকে ময়লা ফেলা বন্ধে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে একেবারে সামনে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ অফিসের বরাদ্দকৃত জমিতে এমন ময়লার ভাগাড় মোটেও কাম্য নয়।

তিনি আরও জানান, এটি বন্ধে উপজেলা প্রশাসনের মাসিক সমন্বয় সভায় আলোচনা করে ময়লার ভাগাড় অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার জন্য বড়চওনা বাজার কমিটিকে জোর তাগিদ দেওয়া হয়েছে। চারিদিকে সীমানা প্রাচীর করে, সবুজায়ন করা চেষ্টা করা হবে।
এবিষয়ে সখিপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ হোসেন পাটোয়ারী জানান, স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রের বরাদ্দকৃত জমিতে কোনভাবেই ময়লা স্তুপ করে রাখার সুযোগ নেই। ইতিমধ্যে এটি বন্ধে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।