ঢাকাSunday , 25 February 2024

কয়েকটি গাড়ি পোড়ালেই সরকার পড়ে যাবে, অত সহজ না: প্রধানমন্ত্রী

বাংলা ডেস্ক
ডিসেম্বর ২০, ২০২৩ ৫:১৭ অপরাহ্ণ । ৪৮ জন
link Copied

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, লন্ডন থেকে হুকুম দিয়ে মানুষ পোড়ানো বিএনপির চরিত্র। আমরা যখন উন্নয়ন করছি বিএনপি তখন আগুন দিয়ে মানুষ পোড়াচ্ছে। তাদের মনে রাখা উচিত আগুন নিয়ে খেললে ওই আগুনেই হাত পুড়বে।

বুধবার বিকালে সিলেটের আলিয়া মাদরাসা মাঠে জনসভায় দেওয়া ভাষণে এ কথা বলেন তিনি।

দেশের সব ধরনের নাশকতায় বিএনপির জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে বলেও জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

আগুন নিয়ে খেলতে এলে তাদের হাত পুড়িয়ে দেওয়া হবে। কয়েকটি গাড়ি পোড়ালেই সরকার পড়ে যাবে, অত সহজ না বলেও মন্তব্য করেন তিনি। আগুন সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে তিনি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

নির্বাচন বর্জন করে আন্দোলনে থাকা বিএনপির সমালোচনা করে শেখ হাসিনা বলেন, নির্বাচন বন্ধ করবে এত সাহস কোথা থেকে পায়। লন্ডন থেকে হুকুম দেয়।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, আওয়ামী লীগ যখন উন্নয়ন করছে তখন বিএনপি আগুনে পুড়িয়ে মানুষ মারছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, বিএনপি বাণিজ্য করেই ধ্বংস করেছে নির্বাচন। একজন লন্ডনে বসে মনোনয়নপত্র বিক্রি করেছে। আরেকজন গুলশানে বসে মনোনয়নপত্র বিক্রি করেছে। আবার পল্টন থেকেও আরেকবার বিক্রি করেছে। তারা এভাবে নির্বাচনকে বাণিজ্যে পরিণত করে ধ্বংস করেছে নির্বাচনকে।

জনসভায় শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগের কাজই হচ্ছে জনগণের সেবা করা। আর বিএনপি যতোবার ক্ষমতায় এসেছে দেশকে ধ্বংস করেছে। লুটপাট করেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জনগণ বারবার নৌকায় ভোট দিয়েছে বলেই উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হতে সক্ষম হয়েছে বাংলাদেশ।

এর আগে এদিন বিকাল ৩টা ১৫ মিনিটে মাদরাসা মাঠে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। সিলেটের এ জনসভা থেকে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারের আনুষ্ঠানিক সূচনা করেন তিনি। এ সময় নেতাকর্মীরা স্লোগানে স্লোগানে তাকে স্বাগত জানান।

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির আহমদ ও জেলার সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন খানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত জনসভায় মন্ত্রী, এমপিসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা বক্তব্য দিয়েছেন।

আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনি প্রচার প্রচারণা শুরু করতে এদিন বেলা ১১টায় ৩৫ মিনিটে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় তাকে অভ্যর্থনা জানান কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতারা। পরে হযরত শাহজালাল (রহ.) এর মাজার ও হযরত শাহ পরান (রহ.) এর মাজার জিয়ারত করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ সময় তার ছোট বোন শেখ রেহানাসহ দলের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এসআর